চট্টগ্রামের বন্দর এলাকায় নিমার্নাধীন সড়কের কাজে প্রতিবন্ধকতাকে কেন্দ্র করে ত্রী-মুখী সংঘর্ষের আশংঙ্খা (ভিডিও)

দৈনিক আজকালের দর্পন ডেস্ক: 

নগরীর বন্দর থানাধীন ৩৭নং ওয়ার্ডের, তেওয্যা পাড়া, আবদুল খালেক দফাদার সড়কটি দীর্ঘদিনের পুরানো একটি সড়ক, এই সড়কে প্রতিদিন সকাল হতেই রাত পর্যন্ত প্রায় ২ শতাধিক পরিবার সহ ২০০০ হাজার জনগোস্ঠীর চলাচলের একমাত্র রাস্তা, সম্প্রতি নগরীর সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক ৩০ ৫ ফুটের সড়কটিতে সংস্কার কাজের প্রায় ২৭৫ ফুট সড়ক, নির্মানে এক প্রর্যায়ে প্রতিপক্ষ বাড়ির মালিকরা  তাদের জায়গার মালিকানা দাবী করে।

 

এক পর্যায়ে প্রায় ৩০ ফুটের অধিক সড়ক ও ড্রেনের নির্মান কাজ বন্ধ করে দেয় বলে একে অন্যকে দোষারোপ করতে থাকে। সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয় এলাকাবাসী ও এলাকার মেম্বার মুছার সাথে আলাপকালে তার বিরুদ্ধে সড়কটি নির্মানের অবহেলার অভিযোগ আসলে তিনি বিষয়টা এডিয়ে যান, তবে এ বিষয়ে যুবলীগ নেতা জসিম ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন; সরকারী কাজে বাধাঁ দেওয়াটা মুলত: আইন সংগত নয়। এ বিষয়ে স্থানীয় বাসিন্দা অনিক- দৈনিক আজকালের দর্পণকে বলেন; সামনে আসছে বর্ষাকাল এখন নির্মান কাজ বন্ধ করা হলে সামন্য বৃষ্টিপাতে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হতে পারে। তাই অচিরেই যেন সড়কটি নির্মানে চট্রগ্রামের সিটি কর্পোরেশন প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন বিষয়টি নিয়ে প্রদক্ষেপ গ্রহন করেন এ কামনা করছেন এলাকাবাসী।

 

স্থানীয়দের সাথে আলাপকালে জানা যায়, মাত্র ৩০ ফুট জায়গার নির্মান সমস্যা নিয়ে সড়কটিতে চলাচলের অযোগ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে।  এমনকি সড়কটি নির্মানাধীন  অবস্হায় নির্মান কাজ বন্ধ হয়ে যাওয়াতে স্থানীয় এলাকাবাসীর চলাচলের ব্যাপক সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। কেবলমাত্র ৩০ ফুট জায়গায় সড়ক নির্মানের ঘটনায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এতে করে যেকোন সময় বড় ধরনের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে হতাহতের আশংক্ষাও বিদ্যমান। তবে এ বিষয়ে স্থানীয় বন্দর থানার সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন; এ বিষয়ে আমাদের কাছে কোন অভিযোগ আসেনি,  অভিযোগ পেলে আমরা তা সুষ্ঠুভাবে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্হা নেবো।

 

 

 

 

No description available.

শর্টলিংকঃ