মীরসরাইয়ে বউয়ের আগুনে পুড়লো শ্বশুরের বসতঘর

দৈনিক আজকালের দর্পন নিজস্ব প্রতিনিধী: চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে পারিবারিক কলহের জের ধরে বসতঘরে আগুন দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার মায়ানী ইউনিয়নের পশ্চিম মায়ানী গ্রামের ওয়াজ উদ্দিন মাঝির বাড়িতে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় ৩০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার। অগ্নিকাণ্ডে নগদ দুই লাখ টাকা, ৭ ভরি স্বর্ণালংকার ও আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে ক্ষতিগ্রস্তরা হলেন ওয়াজ উদ্দিন মাঝি বাড়ির নুরুল আবছার ও তার ভাই আজম খান।অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত নুরুল আবছার বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে আমার স্ত্রীর সঙ্গে ছেলের বউ জাকিয়ার ঝগড়া লাগে এবং একপর্যায়ে বলে আমি তোর এ ঘরে আগুন লাগিয়ে যাবো। আমার ছেলের বউ ঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়

আগুনে পুড়লো শ্বশুরের বসতঘর এর ছবির ফলাফল

জানা গেছে, মায়ানী ইউনিয়নের পশ্চিম মায়ানী গ্রামের নুরুল আবছারের ছেলে প্রবাসী আলতাফ হোসেনের সঙ্গে দেড় বছর আগে বিয়ে হয় শাহেরখালী ইউনিয়নের ডোমখালি এলাকার নুুরুল আবছারের মেয়ে জাকিয়া বেগমের। বিয়ের পর থেকে প্রায়সময় জাকিয়া ও তার শ্বাশুড়ির সঙ্গে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকতো। সে ঝগড়ার রেশ ধরে ঘরে আগুন লাগায় জাকিয়া।

বিষয়টি সত্যতা নিশ্চিত করে মায়ানী ইউনিয়নের ৯নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নুরুল গণি বলেন, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে স্থানীয়রা এসে প্রায় দু’ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেওয়া হলেও সড়কের উপর গোলবার (ভারী যানবাহন চলাচল না করার জন্য) থাকার কারণে গাড়ি আসতে পারেনি।’মীরসরাই ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন মাস্টার তানভীর আহমেদ বলেন, ‘অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে আমাদের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। কিন্তু আবুতোরাব-মায়ানী সড়কে লোহার গোলবার থাকায় গাড়ি আর যাওয়া সম্ভব হয়নি। অন্য সড়ক দিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলেও একই চিত্র দেখা যায়।’

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।