রাজধানীতে প্রবেশ করেছে বন্যার পানি

রাজধানীতে প্রবেশ করেছে বন্যার পানি

দৈনিক আজকালের দর্পণ ডেস্ক : ঢাকার চারপাশে বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতি হয়েছে। দিন যত গড়াচ্ছে, বন্যার পানি আরো ফেঁপে উঠছে। এরই মধ্যে ঢাকার দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) কিছু এলাকা বন্যার পানিতে তলিয়েছে। ডেমরার ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৭০ নম্বর ওয়ার্ডের নলছাটা, দুর্গাপুর, তাম্বুরাবাদ, ধিত্পুর, খলাপাড়া, ঠুলঠুলিয়া, আমুলিয়া-মেন্দিপুর এলাকার নিম্নাঞ্চল বালু নদের পানিতে প্লাবিত হয়েছে।

খিলগাঁওয়ের ডিএসসিসির ৭৫ নম্বর ওয়ার্ডের বিচ্ছিন্ন এলাকাগুলোর মধ্যে- ইদারকান্দি, ফকিরখালী, দাসেরকান্দি ও গজাইরাপাড়ার রাস্তাঘাট ও নিম্নাঞ্চল পানিতে ডুবে গেছে। ওয়ার্ডের নিম্নাঞ্চলের কমপক্ষে ৩ কিলোমিটার রাস্তা তলিয়ে গেছে। কোথাও কোথাও কোমরপানি জমেছে। এ ছাড়া ওয়ার্ডের ত্রিমোহনী, লায়নহাটি, নাগদারপাড়, নাসিরাবাদসহ বেশির ভাগ এলাকার নিম্নাঞ্চল ও বাড়িঘর প্লাবিত হয়েছে। ৭৫ নম্বর ওয়ার্ডের দেড় শতাধিক ঘরে প্রবেশ করেছে বানের পানি। এছাড়া ডিএসসিসির ৬, ৭৩, ৭১ নম্বর ওয়ার্ডের প্রায় অধিকাংশ এলাকায় বন্যার পানি ছড়িয়ে পড়েছে।
রাজধানীর আশেপাশের জেলাগুলোতেও বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। তবে অবনতি হয়েছে দোহার, সাভার ও ধামরাইয়ের পরিস্থিতি। টানা বৃষ্টিতে বংশী ও ধলেশ্বরী নদীর পানি বাড়ায়, প্লাবিত হয়েছে নতুন নতুন এলাকা। ডুবেছে ধামরাইয়ের ৮টি ও সাভারের ৫টি ইউনিয়নের রাস্তা-ঘাট, ফসলি জমি ও মাছের ঘের। আশুলিয়ায় বানের পানির সাথে শিল্পবর্জ্য মিশে দূষিত হচ্ছে পরিবেশ। রাজবাড়ী, শরীয়তপুর, মানিকগঞ্জ ও মাদারীপুরে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। তবে এখনও বিপদসীমার উপরে পদ্মার পানি। এদিকে উত্তরাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে। তবে দুর্গত এলাকায় মানবেতর দিন কাটছে বানভাসিদের।
শর্টলিংকঃ