সাম্প্রদায়িকতার শেকল ভেঙ্গে বাংলাদেশ এখন অসাম্প্রদায়িক : তথ্যমন্ত্রী

দৈনিক আজকালের দর্পন  : তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রব্যবস্থার শেকল ভেঙ্গে বাংলাদেশ এখন অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘এ দেশ আমার-আপনার সবার। তাই, সব ধর্মের মানুষের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই দেশ স্বপ্নের ঠিকানাতেই শুধু পৌঁছুবে না, আমরা সেই ঠিকানাও অতিক্রম করে যাবো।’

আজ রবিবার (৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানমন্ডি সার্বজনীন পূজা কমিটি আয়োজিত কলাবাগান পূজামন্ডপ পরিদর্শন শেষে সমবেত বিপুলসংখ্যক পূজারী ও দর্শনার্থীদের উদ্দেশ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, হিন্দু-মুসলিম-বৌদ্ধ-খ্রিস্টানসহ সকল ধর্মের মানুষের মিলিত রক্তস্রোতে অর্জিত বাংলাদেশের লাল-সবুজের পতাকা অসাম্প্রদায়িকতার অনন্য প্রতীক।

তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রথম পরিচয় আমরা বাঙালি, তারপরের পরিচয় আমরা কে কোন ধর্মের। সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রব্যবস্থার শেকল ভেঙ্গে আমরা প্রতিষ্ঠা করেছি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ।’

ধর্মীয় উৎসব এখন আর শুধু সংশ্লিষ্ট ধর্মের মানুষের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয় একথা উল্লেখ করে ড. হাছান বলেন, ‘শারদীয় দুর্গোৎসবের পাশাপাশি প্রবারণা পূর্ণিমায় ফানুস ওড়ানোর আনন্দও আজ সার্বজনীন।’তিনি বলেন, ‘২০১১ সালে দেশে পূজামন্ডপ ছিল প্রায় ১ হাজার ১০০, এখন তা ৩ হাজার ১০০’রও বেশি। পূজামন্ডপ তিনগুণ বৃদ্ধির কারণ, নিজধর্ম পালনে পূর্ণ স্বাধীনতা, অর্থনৈতিক সামর্থ্য বৃদ্ধি ও নিরাপত্তাবোধের স্বস্তি।’‘হিন্দু ধর্মমতে দেবী দূর্গার আগমনে ধরায় সকল অসুর শক্তি দূর হয়ে সারাবছর শান্তি বিরাজ করুক’ এই প্রত্যাশা ব্যক্ত তথ্যমন্ত্রী সকলকে শুভেচ্ছা জানান।ধানমন্ডি পূজা কমিটির সভাপতি অমর কৃষ্ণ পোদ্দার, সাধারণ সম্পাদক অশোক কুমার বসু, সহসভাপতিদের মধ্যে অধ্যাপক বি কে সাহা প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।